লুব্ধক

বেশ কিছুদিন ধরে তেমন একটা লিখছি না। লেখালেখি নিয়মিত না করলে অভ্যাসে ভাটা পরে যায়। তখন নতুন করে আবার শুরু করাটা বেশ কঠিন।


গত ঈদে দেশে যাওয়ার সময় থেকেই এটা হয়েছে। প্রথমে প্লেন মিস তারপর দীর্ঘ জার্নি করে এতই ক্লান্ত ছিলাম যে সেটা কাটিয়ে উঠতে বেশ সময় লেগেছিল। এরপর অক্সফোর্ডে ফিরে এসেই আবার অসুস্থ হয়ে গিয়েছিলাম। ফলে ব্লগে লেখার সংখ্যা অনেক কমে গিয়েছে।

আজকে তাই আবার নিজের আপডেট লিখতে বসলাম। গত দুইমাসে রিসার্চের কাজেই ব্যস্ত ছিলাম বেশিটা সময়। এর ফাঁকে কর্টেক্স ক্লাব আর বন্ধুদের সাথে আড্ডাবাজিতে বুঝে ওঠার আগেই বছরের প্রথম টার্মটা শেষ হয়ে গেল। অক্সফোর্ডে এই টার্মের নাম হল মিকেলমাস টার্ম। সেদিন ল্যাবে বন্ধু ফ্রেডি জিঞ্জেস করতেছিল, আচ্ছা এইটাকে মিকেলমাস কেন বলে মাইকেলমাস কেন বলে না? আমি বললাম জানিনা তো। পাশে অ্যালেক্স ছিল। সে বলল, এইখানে এমন অদ্ভুত কিছু উচ্চারণ আছে। যেমন ম্যাগদালেনকে ইংরেজীতে বলে মডলিন।

গল্পে গল্পে আমরা কৌতুহলী হলাম মিকেলমাস টার্মের নাম কিভাবে আসল। জানা গেল, জনৈক সেন্ট মিকেলমাসের স্মরণে সেপ্টেম্বরের ২৯ তারিখ একটি ভোজসভা আয়োজনের রীতি প্রচলিত আছে। একই সময়ে শুরু হওয়া মিকেলমাস টার্মের নাম খুব সম্ভবত সেন্ট মাইকেলের নাম থেকেই এসেছে। র‍্যান্ডম আলোচনা থেকে নতুন কিছু জানা গেল আরকি।

কিছুদিন আগে এইরকম আর একটা নতুন জিনিস জানলাম। তবে সেটা আলোচনা থেকে নয়। পর্যবেক্ষণ থেকে! সেদিনের রাতটা ছিল বেশ তারা ভরা। আমি ঘরের আলো নিভিয়ে দিয়ে তারা দেখছিলাম। ঠান্ডা থাকায় বাইরে গিয়ে বসার উপায় নেই। খেয়াল করলাম দক্ষিণ আকাশের একটা তারা অন্য তারাগুলোর থেকে উজ্জ্বল। মানে একটু বাড়াবাড়ি রকমেরই উজ্জ্বল। কালপুরুষের ঠিক পাশেই ছিল তারাটি। এত উজ্জ্বল একটা তারা অথচ এর নাম জানি না দেখে নিজেরই মন খারাপ হয়ে গেল। একটু খুঁজতেই পেয়ে গেলাম তারাটির নাম। সিরিয়াস। আকাশের সবচেয়ে উজ্জ্বল তারা। হ্যারি পটার ভক্ত হওয়ায় সিরিয়াস নামটির প্রতি একধরণের দূর্বলতা আছে। তাই সিরিয়াস তারাটিকেও ভাললাগা শুরু হয়ে গেল।

সিরিয়াস তারাটির অবস্থান 'ক্যানিস মেজোর' তারামন্ডলীতে। ক্যানিস মেজর মানে বড়ো কুকুর। এই তারামন্ডলীটির অবস্থান কালপুরুষ বা দ্যা গ্রেট হান্টারের সবচেয়ে কাছে হওয়ায় মানুষ মনে করত এটা আসলে হান্টারের পোষা কুকুর। মজার ব্যাপার হল সিরিয়াস কিন্তু একটি নক্ষত্র নয় বরং এটা আসলে পাশাপাশি অবস্থিত দুইটি নক্ষত্র। বাংলায় সিরিয়াসকে বলে লুব্ধক।

আজকে আকাশ মেঘলা হওয়ায় তারা নেই। শীতকালের মেঘলা আকাশ খুবই মন খারাপ করা ব্যাপার। সবচেয়ে খারাপ যেদিন ঠান্ডা থাকে, বৃষ্টি পড়ে আর সাথে অনেক বাতাসও থাকে। তবে আশার কথা পরশুদিন বাংলাদেশে যাচ্ছি। আমাদের দেশের শীতকাল সবচেয়ে আরামের সময়। অন্তত ঢাকায়।

ঢাকায় গেলে সময়টা ভালই কাটবে আশা করি। এখন আগেরবারের মত প্লেন মিস না করলেই হয়।

মঞ্জিলুর রহমান
সামারটাউন, অক্সফোর্ড

লেখাটি শেয়ার করুন

Share on FacebookTweet on TwitterPlus on Google+


ইমোটিকনইমোটিকন