বসন্ত এলেই ভালবাসা

তুমি ভাবছ বসন্ত এলেই বুঝি ভালবাসি তোমায়
শুধু এই সময়ই নাকি প্রেমে পরি,
শীত, গ্রীষ্ম আর বর্ষার আপদে সবকিছু ভুলে
ভালবাসাকেই নাকি না বলি!

কখনও ভেবেছ কি বসন্তের উচ্ছসিত সময়
ছাড়া তুমি হয়ত হয়ে পর দৃষ্টিহীন
দেখনা আমার ভালবাসা
শীত, গ্রীষ্ম আর বর্ষায়।
বসন্তের সুবাতাসেই কেবল তোমার কাছে
বয়ে নিয়ে যেতে পারে আমার প্রেমের বার্তা।

তাইতো সেবার যখন বৃষ্টি হল তুমি লিখলে
অন্য কবিতা। আমার ভালবাসাকে উপেক্ষা করে
তোমার বৃষ্টির পানিতে গা ভেজানোর উপাখ্যান
অভিযোগ করায় উত্তর দিলে ‘আমি তো বৃষ্টিকে
নদী ভেবে সাঁতার কাটছিলাম আমার স্বপ্নে।
আমি কখনও বৃষ্টিতে ভিজিনি।‘

আমি বললাম তাহলে ভিজব একদিন তোমার সাথে।
গ্রীষ্ম এল তুমি পাশে নেই।
বসন্তের ফুল যে আজ শুকিয়ে গেছে
তাই নতুন ফুলের সন্ধানে তুমি।
তাই আরও পরে যখন বর্ষা এল সেসময়
আর ভেজা হলনা দু’জনে মিলে।
শীত এল, শুকিয়ে গেছি আমি
অন্তঃসার শুণ্য, আশ্রয় খুঁজি তোমার কাছে
একটু স্নিগ্নতার পরশ বুলিয়ে
বেঁচে থাকার অবলম্বন যোগাবে।

চলে গেলে তুমি বসন্তের মরা ফুল ছেড়ে।

আমি গাছ হয়ে অপেক্ষায় থাকি আবার বসন্তের।

ফাগুণ এলেই আবার নতুন করে
তোমার প্রেমে পরব খুঁজব ভালবাসার মানে।
এই নতুন ভালবাসার টানেই হয়ত
আবার আসবে তুমি চলে যাওয়ার জন্যে।

লেখাটি শেয়ার করুন

Share on FacebookTweet on TwitterPlus on Google+


ইমোটিকনইমোটিকন