নতুন বছর ২০১৬

ক্যালেন্ডারে নতুন বছর শুরু হল, ২০১৫ এর এককের ঘরে এখন থেকে ৬ বসাতে হবে। তেমন বেশি কিছু না শুধুমাত্র একটা অঙ্কে পার্থক্য। তবে আমার জন্য এবারের নববর্ষ একেবারেই অন্যরকম।


পহেলা জানুয়ারীতে দেশের বাইরে থাকা এবারেই প্রথম। ভিন্নতার একটা কারণ এটা হতে পারে। তাছাড়াও আরো অনেক বিষয় আছে। যেমন- নববর্ষ পালন করতে আমি যে শহরে থাকি সেখান থেকে অনেক দূরে এসেছি। অথবা এই প্রথম নববর্ষ উপলক্ষে করা জমকালো আতশবাজি নিজ চোখে দেখেছি।

সেপ্টেম্বরে এখানে আসার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কর্মকান্ড আর ক্লাস-পরীক্ষা মিলিয়ে প্রথম টার্মটা বোঝার আগেই শেষ হয়ে গেল। বন্ধে বেশ কিছু কাজ করার কথা ছিল যার কিছু করা হয়েছে কিছু করা হয় নি। তবে বন্ধের অবসরে মন খারাপ হওয়া শুরু হল। যার কিছুটা কোন কাজ না থাকার কারণে, কিছুটা ক্লাসমেট সব বাড়ি চলে যাওয়ার আর কিছুটা খারাপ আবহাওয়ার কারণে। তাই ইচ্ছা হল কোথাও বেড়িয়ে আসার।

স্কটল্যান্ডের এডিনবরা থেকে আমত্রণ ছিল আগে থেকেই। স্বাভাবিক এই শহরকেই বেছে নিলাম। এডিনবরার নিউ ইয়ার ফ্যাস্টিভাল বিখ্যাত যাকে বলে 'হগমেনেয়'। তিন দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ মশাল মিছিল, কনসার্ট আর আতশবাজি।

৩১ তারিখে 'হগমেনেয়' আর ১ তারিখ এডিনবরার পাহাড়ে ঘোরাঘুরি দিয়ে শুরু হল আমার নতুন বছর। পুরাতনকে পিছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ারও শুরুও এটা। আশা করছি গত কয়েকবছরের খারাপ অভিজ্ঞতাগুলো সুদে-আসলে ভাল কিছু হয়ে ফিরে আসবে এ বছর।

সবার জীবনে ২০১৬ অনেক অনেক আনন্দ নিয়ে আসুক। সবাইকে হ্যাপি নিউ ইয়ার।

লেখাটি শেয়ার করুন

Share on FacebookTweet on TwitterPlus on Google+


ইমোটিকনইমোটিকন